Survey Junkie থেকে ১ ঘন্টায় ৫ ডলার আয় করার সিক্রেট ট্রিক টি চলুন দেরী না করে দেখে নেওয়া যাক।


যারা আমার সার্ভে সিরিজের আগের পর্ব গুলো দেখেন নাই তারা দেখে নিন নিচের লিংক গুলো থেকেঃ-

সার্ভে কাজ কি ? সুবিধা ও অসুবিধা এবং নিয়ম সাথে মাসে আয় করুন 8K থেকে 24K BDT


ভেরিফাইড পেপাল খুলবেন যেভাবে এবং Go2Bank থেকে টাকা ট্রান্সফার করার নিয়ম (পর্ব -৩ )

উপরের তিনটি পর্ব যদি আপনি পড়ে থাকেন তবে আপনি সম্পূর্ণ প্রস্তুত কাজ করার জন্য এবার মূল কাজে যাওয়া যাক।


সর্ব প্রথম আপনাদের দরকার হবে আমেরিকান প্রক্সি কিংবা Residential RDP
এর পর দরকার হবে আপনার ব্রাউজারে প্রক্সি সেটিংস করা।
সম্ভব হল SSN ক্রয় করে নেওয়া নয়তো ফ্রিতে কালেক্ট করা।
এরপর  Survey Junkie তে একাউন্ট তৈরী করা। 

উপরের স্টেপ গুলো কিভাবে করবেন তা নিয়ে আগেই পোষ্ট শেয়ার করা হয়েছে তাই আশা করি পূর্বের পোষ্ট দেখলেই বুঝতে পারবেন।




ভিডিও আকারে দেওয়া জন্য দুঃখিত তারপরেও আশা করি লেখার থেকে দেখলে আপনার জন্য সুবিধা হবে।

আর সিক্রেট ট্রিক এবং আইপি ফ্রিতে কালেক্ট করার জন্য একটি গ্রুপ সাজেস্ট করে দেওয়া হবে পোষ্টের শেষ প্রান্তে তা যদি চান আপনি ফলো করতে পারেন।


ইনভেস্ট না করে সার্ভে কাজ করাটা অনেকটা অসম্ভব বলা যেতে পারে। তবে আমি কোন প্রকার ট্রিক নয় বরং কিভাবে আপনি টাকা ইনভেস্ট না করে আইপি ক্রয় করে ভালো সাইট গুলোতে কাজ করে মাসে ৮ হাজার টাকা সর্বনিম্ন আয় করবেন তা নিয়ে আলোচনা করবো।


তবে যারা এখনো সার্ভে কাজ সম্পর্কে অবগত নন তারা অবশ্যই আগের পর্ব গুলো দেখে আসবেন কষ্ট করে নয়তো অনেক কিছুই অজানা মনে হতে পারে।

তবে কাজ টা করার আগে আমার কিছু কথা আপনাদের জানানো উচিৎ।

আমি সব সময় বলে আসছি ফ্রি আইপি দিয়ে যতটুকু সম্ভব আগে কাজ টাকে জানার চেষ্টা করুন।

ধরে নিন আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখবেন কিংবা ওয়েব ডিজাইন সে ক্ষেত্রে কি হবে আপনাকে তার পিছনে মিনিমাম ৩-১২ মাস সময় ব্যয় করতে হবে। 
এর জন্য আপনাকে একটি কোর্স করতে হবে সেখানে খরচ এবং আপনি যে কাজ করবেন সেখানেও অনেক সময় খরচ।

কিন্তু যদি কাজ শিখে যেতে পারেন তবে কিন্তু আর পিছনে তাকাবার ও সময় আপনার থাকবেনা। কিন্তু এটার জন্য আপনাকে লং টাইম সময় দিতে হবে তাই নয় কি?

আচ্ছা এবার আপনারা বলুন যারা ব্যান খেয়েছেন কিংবা এখনো কাজ করছেন তারা কি আসলেও কাজটা শেখার জন্য ১ মাস অন্তত সময় দিয়েছেন আমি শিউর না হবে উত্তর।

তাহলে আপনি জাস্ট ২৪ ঘন্টায় কাজ শিখে এখানে আয় করতে পারছেন তাহলে কি এটা অনেক সহজ কাজ নয়।
আচ্ছা সব কাজেই তো রিস্ক আছে তাই না যদি রিস্ক না থাকতো তাহলে আসলে কাজের মর্ম টা বোঝা যেত না।
আর আমরা পথ দেখিয়েছি কাজ করা কিংবা না করা আপনার ব্যাপার।

আর হ্যা সবাই একদিনে কাজে পটু হয়ে যায় না ৩ পয়েন্ট পাচ্ছেন যারা বার বার পোষ্ট ম্যাসেজ করছেন তাদের এক কথায় বলে যাচ্ছি আপনি সঠিক ভাবে কাজ করতে পারেন নি তাই ৩ পয়েন্ট করে দিচ্ছে আপনি যদি এই কাজ ভালো ভাবে শিখতে পারেন তবে পুরো পয়েন্টেই পাবেন।

ঐ সেই কথাই আবার বললাম আগে শিখতে হবে প্রথম দিন জন্মেই কিন্তু আপনারা হাটা শিখেন নি বার বার হোচট খেয়েছেন তারপর স্টিল দাড়াতে সক্ষম হয়েছেন এখানেও ব্যাপার টা তেমন হোচট খাচ্ছেন ৩ পয়েন্ট পাচ্ছেন আগে দাড়াতে শিখুন কারন যদি আপনি ব্যান হয়ে থাকেন সেটা সম্পূর্ণ আপনার দোষে কারন আপনার আইডি কিন্তু অন্য জন চালাচ্ছেনা যে তাকে দোষারপ করতে পারবেন।

তো আর কথা না বলে শুরু করা যাক আমাদের আজকের আয়োজনঃ 

তো কাজ করতে হলে দরকার আমাদের রেসিডেন্সিয়াল আইপি কিংবা আর ডি পি। তাহলে আমরা সুন্দর ভাবে কাজ করে যেতে সক্ষম হবো।

আর এখানেই আসে মূল বিপত্তি কারন রয়েছে আইপি ক্রয় করার ঝামেলা। আর পাশাপাশি টুনুটুনু মন বলছে যদি লস যায় যদি আয় করতে না পারি। সেজন্যই আমি সম্পূর্ণ একমাস আপনাদের কাজ করার জন্য ফ্রি তে আইপি দিয়েছে গ্রুপের সবাইকে। আর যারা প্রফেশনাল স্টাইলে কাজ করতে চেয়েছে তাদেরকেও আইপি ম্যানেজ করে দিয়েছি।

তো যারা আমাদের গ্রুপের গত এক মাসে জয়েন করতে পারেন নাই তারা চাইলে আগামী কয়েকদিন আরো ফ্রিতে আইপি শেয়ার করবো নিজে থেকে কাজ টা ফ্রিতে শেখার চেষ্টা করতে পারেন।

যেহেতু সার্ভে কাজের জন্য আইপি দরকার তাহলে আইপি ক্রয় করার দরকার। 
কিন্তু আপনি যদি তা না পারেন তবে আমি যে ট্রিক টি অবলম্বন করেছিলাম তা চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

তো আমি যা করেছিলাম প্রথমে এমন কিছু সাইট খুজে বের করার চেষ্টা করলাম যেগুলোতে আমি আইপি ছাড়াও কাজ করতে পারবো।

যদিও ব্যাপারটা আমার জন্য কম কষ্টের ছিলোনা কতগুলো একাউন্ট খুলেছিলাম মনে নেই, কোন সাইট টি দিয়ে আইপির দাম উঠানো যাবে তা জানার জন্য।
যাক কিছু সাইট পেলাম যেখানে কাজ করা যাবে ভিপিএন ব্যবহার করে। আবার কিছু সাইট পেলাম বাংলাদেশী আইপি ব্যবহার করেও কাজ করা যাবে।
তাহলে আমাদের ট্রিক টা ঠিক এই জায়গায় আমরা এমন কিছু সাইটে কাজ করবো যেগুলো সাধারণ ভাবে কাজ করা যায়। 
তবে এগুলোর মধ্যে পার্থক্য হলো এই সাইট গুলো থেকে আর্নিং কম আসে আর যেসব সাইটে আইপি দিয়ে কাজ করা হয় সে সাইটগুলোতে বেশী আর্নিং আসবে।


চলুন এমন কিছু সাইট সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক যেগুলো আইপি ছাড়াই কাজ করতে পারবেন।




তাহলে আজকের পর্ব এখানেই শেষ করছি এবং এবার পুরো সিরিজ একটানা শেয়ার করবো ইনশাআল্লাহ।  

উপসংহারঃ


দুই মাস একটানা রিসার্চ করার পর সিরিজ চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আর ধন্যবাদ ট্রিকবিডি থেকে এসে আমাকে রিসার্চে হেল্প করার জন্য ১৫০০+ মেম্বার কে। সবার জন্য ভালোবাসা দোয়া রইলো। 

আমাদের গ্রুপ থেকে নতুন করে ১০ তারিখ টিম গঠন করা হবে মোট ৪০ জন মেম্বার কে আইপি গাইড এবং হেল্প এন্ড সাপোর্ট আমরা দিবো তবে শর্ত একটাই আপনার প্রতি পেমেন্টে ৫০% করে খরচ বাবদ কাটা হবে বাকীটা আপনি ইন্সট্যান্ট পেয়ে যাবেন বিকাশ কিংবা নগদে।

গত মাসেও ১০০ জন মেম্বার এর কাজ করার খরচ আমি চালিয়ে গিয়েছি আর আমাদের কাছেই আপনি ডলার/গিফটকার্ড/ ক্রিপ্ট সেল করে আপনার টাকা বুঝে পাওয়ার সিস্টেম চালু করেছি। যার ফলে আপনাকে কোন কষ্ট করতে হবে না সবার টা কালেক্ট করে সেল করা থেকে শুরু করে পেমেন্ট দেওয়া আল্লাহর রহমতে সব ঠিক ভাবেই চলছে। 

আগামী পর্বে আরো নতুন কিছু তুলে ধরার চেষ্টা করবো সাথে থাকুন পাশে পাবেন। তাহলে আবার দেখা হচ্ছে নতুন কোন সময় ইউনিক কিছু নিয়ে।

আমাদের ফেসবুক অফিশিয়াল গ্রুপ

আর ট্রিকের জন্য টেলিগ্রামে জয়েন করুন 




Post a Comment