কাস্টম ডোমেইন ব্লগারে যুক্ত করে নিন ৫ মিনিটে, আপনি যদি ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন যুক্ত করতে ব্যর্থ হয়ে থাকেন তবে দেখে নিন সমাধান।

কাস্টম ডোমেইন ব্লগারে যুক্ত করে নিন ৫ মিনিটে
 
কাস্টম ডোমেইন ব্লগারে যুক্ত করে নিন ৫ মিনিটে তবে তার আগে চলুন দেখে নেই কিভাবে আপনি কাজটি সহজে করতে পারবেন।

আশা করি আপনি অবশ্যই ব্লগার নয়তো আমার এই আর্টিকেলে প্রবেশ করতেন না। যেহেতু প্রবেশ করেই ফেলেছেন তবে দেরী না করে চলুন শুরু করা যাক আজকের টপিক।

Custom Domain: 

ব্লগারে যখন আপনি নতুন করে একটি ওয়েবসাইট খুলবেন তখন আপনি একটি ফ্রি সাব ডোমেইন পাবেন।
যেমনঃ yoursite.blogspot.com
এটা হচ্ছে মূলত একটি ফ্রি ডোমেইন যা গুগল আপনাকে ফ্রিতে দিয়ে থাকে আপনার সাইটের সূচনা করানোর জন্য।
তবে আপনি ফ্রি ডোমেইন নিয়ে বর্তমানে ভালো একটা পজিশনে কখনোই পৌছাতে পারবেন না।
সেক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন হবে একটি প্রিমিয়াম ডোমেইন।
যেমন ধরুনঃ- Yoursite.Com
আর এটাকে প্রিমিয়াম বলার কারন হলো এটা কমার্শিয়াল। তাই আপনি যদি একটি প্রফেশনাল মানের ওয়েবসাইটের মালিক হতে চান। 
তবে সেক্ষেত্রে একটি ডট কম ডোমেইন এর গুরুত্ব অনেক বেশী। তবে অনেক ধরনের ডোমেইন এক্সটেনশন রয়েছে তারপরেও সব থেকে .Com ডোমেইন টা বেশী কার্যকরী।

আর ব্লগারে যদি আপনি ফ্রি ডোমেইন বাদ দিয়ে নতুন কোন ডোমেইন যুক্ত করতে চান। তাহলে সেই নতুন যে ডোমেইন টি যুক্ত করতে চাচ্ছেন সেটাই হচ্ছে কাস্টম ডোমেইন। সেটা হতে পারে যে কোন এক্সটেনশন।

ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন যুক্ত করার নিয়মঃ-

প্রথমত আশা করি আপনার ডোমেইন আপনি ক্রয় করে নিয়েছেন। 
নয়তো কাস্টম ডোমেইন এর আর্টিকেল টিতে ঘুরতে আসতেন না।
আপনি কিন্তু চাইলে শুধু Cname এবং A রেকোর্ড গুলো বসিয়ে আপনার ডোমেইন টি যুক্ত করে নিতে পারেন।
তবে আপনি যদি তাতে সফল না হয়ে থাকেন তবে দেখুন বিকল্প পদ্ধতি।
কারন এটা আপনাকে খুব সহজে ডোমেইন টি যুক্ত করতে সাহায্য করবে।


এবার আপনি ব্লগার ডট কম সাইটে গিয়ে লগিন করে ডাশবোর্ডে চলে যান। 
তারপর সেটিংস > কাস্টম ডোমেইন এ চলে যান। 
কাস্টম ডোমেইনের ঘরে আপনার ডোমেইন নেম www.yoursite.com এভাবে লিখে দিন। 
এবং Save বাটনে ক্লিক করুন।

আপনি লাল কালিতে একটি ম্যাসেজ দেখতে পাবেন এটাই আমাদের দরকার।
CNAMEs: (Name: www, Destination: ghs.google.com) and (Name: lpxdpq6ux4bs, Destination: gv-76iy7qkzrqkopj.dv.googlehosted.com).

এখানে ডোমেইন যুক্ত করতে দরকারী তথ্য Cname এর রেকোর্ড রয়েছ। 
তাই দরকারী জিনিস টুকু আলাদা করে কপি করে নিলাম।
এবার আমাদের দরকার হবে আইপি এড্রেস কিংবা A রেকোর্ড যা আমরা লাল কালিতে থাকা ম্যাসেজে পেয়ে যাবো।
যদি না পান তবে নিচের লিংকে গিয়ে দেখে আসুন সাথে নোট করে নিন।



তারপরেও যদি খুজে না পান তবে নিচে আইপি গুলো উল্লেখ করে দেওয়া হলো।

আইপি/ A রেকোর্ডঃ-

216.239.32.21
216.239.34.21
216.239.36.21
216.239.38.21

এবার কথা হচ্ছে এগুলো ব্যবহার কিংবা রেকোর্ড ফাইল কিভাবে যুক্ত করবেনঃ-

প্রথমে আপনি একটি একাউন্ট তৈরী করে নিন নিচের লিংকে গিয়ে।



প্রথমে উল্লেখিত লিংকে গিয়ে ক্লাউডফেয়ার সাইটে নিজের নামে একটি একাউন্ট তৈরী করে নিন। সাথে মেইল ভেরিফাই করে নিন।



আপনি যখন ক্লাউডফেয়ারে লগিন করবেন তখন আপনাকে সাইটের Dashboard এ নিয়ে যাবে।
Add a Site বাটনে ক্লিক করুন। 


খালি ঘরে আপনার ডোমেইন নাম লিখুন এবং add site বাটনে ক্লিক করে দিন।



আপনি যদি এর আগে কোথাও ডোমেইন পার্ক করে রাখেন তবে সকল DSN রেকোর্ড ক্লাইড ফেয়ার ইমপোর্ট করে নিবে।
সেক্ষেত্রে আপনাকে সকল রেকোর্ড ফাইল গুলো ডিলেট করে দিতে হবে।


এখন শুধু রেকোর্ড ফাইল গুলো ঠিকভাবে বসিয়ে দিলেই কাজ শেষ। এর জন্য প্রথমে Add Record বাটনে ক্লিক করুন।


উল্লেখিত আইপি গুলোকে A রেকোর্ড হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। তাই Add Record এ ক্লিক করে Type A
Name @ এবং IPv4 address এর ঘরে আপনি একটি একটি করে আইপি দিয়ে মোট ৪ টি A রেকোর্ড তৈরী করবেন।
আর Proxy Status  এর মধ্যে DNS নির্বাচন করে দিবেন।


সবশেষে যুক্ত করতে হবে CNAME রেকোর্ড এর জন্য আবার add record বাটনে ক্লিক করুন।
Type Cname Name - www এবং Target ghs.google.com দিয়ে proxy status - DNS করে দিন।
শেষের Cname টি আপনার লাল দাগে থাকা কোডগুলো ব্যবহার করতে হবে। আগের গুলো সব একই দিলেও এখানে তা হবে না।


তাই আমি আমার ডোমেইনের জন্য যে CNAME রেকোর্ড পেয়েছি তা ব্যবহার করছি আপনি আপনার টা ব্যবহার করুন।
কাজ হয়ে গেলে Save বাটনে ক্লিক করে রেকোর্ড যুক্ত করে নিন এবং এরপর Continue বাটনে ক্লিক করে দিন।


আপনি ক্লাউডফেয়ার থেকে একটা ম্যাসেজ পাবেন। আপনাকে আগের Nameserver পরিবর্তন করে নতুন Nameserver দিতে হবে। তাহলেই আপনি ব্লগারে আপনার ডোমেইন টি যুক্ত করতে পারবেন। সাথে বোনাস হিসাবে পাচ্ছেন ক্লাউডফেয়ার এর সিকিউরিটি।



এবার আপনি চাইলে SSL এবং সাইট মিনিফাই করার সেবার ক্লাউডফেয়ার থেকে নিতে পারেন। 
আর DDOS Protection তো এমনিতেই পাচ্ছেন।


URL যদি Rewrite করে HTTPS করতে চান তবে On করে Save করে দিন।

সব সময় HTTPS ব্যবহার করতে চাইলে On  করে Save করে দিন।
যদি সাইটের কোড মিনিফাই করে স্পিড বাড়াতে চান সেক্ষেত্রে নির্বাচন করুন। 

Brotli ব্যবহার করতে পারেন যদি আপনি ফাস্ট লোডিং স্পিড চান।

সবশেষে Finish বাটনে ক্লিক করে দিন।

এবার আপনি আপনার ব্লগার ডট কম এর এডমিন প্যানেলে প্রবেশ করে সেটিংসে চলে যান। এবং Custom Domain এর ঘরে আপনার ডোমেইন নাম বসিয়ে দিন www. সহকারে নয়তো কাজ করবেনা।

তাহলে আশা করি আপনি ক্লাউড ফেয়ার ব্যবহার করে কাস্টম ডোমেইন নিজের ব্লগার ডট কম সাইটে যুক্ত করতে সফল হয়েছেন।

তাই যদি আর্টিকেল টি আপনার উপকারে আসে তবে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে অন্যদের জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।

তাহলে আজকের মত বিদায় দেখা হবে অন্য কোন দিন নতুন কিছু নিয়ে।


1 Comments

  1. ভাই আপনার সাইটে যে টেমপ্লেট ব্যবহার করেছেন এটার নাম কি?

    ReplyDelete

Post a Comment

Ad

Referral Banner

Ad

Referral Banner